আইন-আদালত, লিড নিউজ



নিজস্ব প্রতিবেদক

20 December 2020, 9:19 PM




সিসিক কাউন্সিলর তাজ ঢাকায় গ্রেপ্তার

বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের লিখিত পরীক্ষা চলাকালে অরাজকতার অভিযোগে করা মামলায় সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) ১০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর তারেক উদ্দিন তাজসহ ৫ জনকে গ্রেপ্তার করে একদিনের রিমাণ্ডে নিয়েছে পুলিশ। এ ঘটনায় দায়েরকৃত একটি মামলায় তাজকে প্রধান আসামি করা হয়েছে।

বিষয়টি সিলেট মিররকে নিশ্চিত করেছেন ঢাকা মহানগরের নিউ মার্কেট থানার এসি আবুল হাসান। তিনি বলেন, ‘পরীক্ষা চলাকালে অরাজকতার দায়ে ঘটনাস্থল থেকেই তাজকে আটক করা হয়। পরে আজ রবিবার মামলা দায়েরের পর তাকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, ‘এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলায় ৪০ জনের নাম উল্লেখসহ ২০০ জনকে আসামি করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত এ ঘটনায় ৩৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আসামিদের মধ্যে প্রথমেই রয়েছে তাজের নাম।’

অরাজকতার অভিযোগে করা মামলায় আজ তাজসহ ৫ জনকে আদালতে হাজির করে পাঁচদিনের রিমান্ড চাওয়া হলে আদালত একদিনের রিমাণ্ড মঞ্জুর করেন। পর্যায়ক্রমে অন্যদেরও রিমান্ডে নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

সিসিক কাউন্সিলর ছাড়াও তারেক উদ্দিন তাজ সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির মিডিয়া, প্রশাসন ও জনসংযোগ পরিচালক। তাছাড়া তিনি আওয়ামী লীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক মিসবাহ উদ্দিন সিরাজের ভাগ্নে।

তারেক তাজ বার কাউন্সিলের পরীক্ষার একজন পরীক্ষার্থী ছিলেন। গতকাল শনিবার বার কাউন্সিলের পরীক্ষা চলাকালে একটি পরীক্ষা কেন্দ্রে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন কিছু সংখ্যক পরীক্ষার্থী। প্রশ্নপত্র ‘অস্বাভাবিক’ ও ‘কঠিন’ হয়েছে এমন অজুহাতে শনিবার রাজধানী ঢাকার কয়েকটি কেন্দ্রে বিক্ষোভের ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় অনেক পরীক্ষার্থীর খাতা ছিঁড়ে ফেলা হয়। সেইসঙ্গে শিক্ষক ও পরীক্ষা পরিদর্শকদের লাঞ্ছিতের অভিযোগও উঠেছে।

জানা যায়, মোহাম্মদপুর মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজ, মোহাম্মদপুর মহিলা কলেজ, মোহাম্মদপুর কেন্দ্রীয় কলেজ ও সূত্রাপুর থানাধীন মহানগর মহিলা কলেজ কেন্দ্রে কিছু পরীক্ষার্থী সকালে পরীক্ষা দিতে অনীহা প্রকাশ করে। পরে তারা পরীক্ষা দিতে আগ্রহী পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা দিতে বাধা দেয় এবং কেন্দ্রের বাইরে এসে বিক্ষোভ করে।

উল্লেখ্য, অ্যাডভোকেটশিপ প্রার্থীদের এই লিখিত পরীক্ষা গত ২৬ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও, করোনা পরিস্থিতির কারণে তা পিছিয়ে শনিাবার (১৯ ডিসেম্বর) সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত লিখিত পরীক্ষার সময়সূচি নির্ধারণ করা হয়েছিল।

এ বছর রাজধানীর নয়টা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে প্রায় ১৩ হাজার প্রার্থীর জন্য এই লিখিত পরীক্ষার আয়োজন করে বার কাউন্সিল। এরআগে প্রার্থীদের একাংশ লিখিত পরীক্ষা ছাড়াই মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে অ্যাডভোকেটশিপ এনরোলমেন্টের দাবিতে আন্দোলন করছিল।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর