বিনোদন



দেশদর্পণ ডেস্ক

২৮ অক্টোবর ২০১৭, ১:১৪ অপরাহ্ণ




সিনেমা হলে জাতীয় সংগীতের বিরোধী বিদ্যা

দেশদর্পণ বিনোদন : সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত পরিবেশন নিয়ে এবার মুখ খুললেন অভিনেত্রী ও সেন্সর বোর্ডের সদস্য বিদ্যা বালান। তিনি বলেছেন, সাধারণত স্কুলের পঠনপাঠন শুরুর আগে জাতীয় সংগীত গাওয়া হয়। কিন্তু, হলে সিনেমা শুরুর আগে জাতীয় সংগীত বাজানো উচিত নয়। কারণ সিনেমা হল তো আর স্কুল নয়। কাহানি খ্যাত অভিনেত্রীর মতে, জোর করে কারও উপর দেশপ্রেম চাপিয়ে দেওয়া যায় না। সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশেই এখন ভারতের সব হলে সিনেমা শুরুর আগে জাতীয় সংগীত বাজানো বাধ্যতামূলক।

গত বছর ডিসেম্বরে এক রায়ে শীর্ষ আদালত জানায়, সিনেমা হলে যখন জাতীয় সংগীত বাজানো হবে, তখন হলে উপস্থিত সমস্ত দর্শককে উঠে দাঁড়াতে হবে। তাই সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত চলাকালীন কোনও দর্শক যদি উঠে না দাঁড়ান, তাহলে আদালত অবমাননার দায়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করতে পারে পুলিশ। আর তাতেই দানা বেঁধেছে বিতর্ক। বস্তুত, মাসখানেক আগে হায়দরাবাদের একটি সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত চলাকালীন উঠে না দাঁড়ানোয় গ্রেপ্তার করা হয়েছিল তিনজন কাশ্মীরি যুবককে। চলতি মাসেই আবার গুয়াহাটির এক সিনেমা হলে জাতীয় সংগীতের সময়ে উঠে না দাঁড়ানোয় পাকিস্তানি তকমা দেওয়া হয় এক প্রতিবন্ধী যুবককে।

এই প্রেক্ষাপটে সোমবার সুপ্রিম কোর্টই জানিয়েছে, সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত চলাকালীন উঠে দাঁড়ানোর কোনও প্রয়োজন নেই। শীর্ষ আদালতের বক্তব্য, জাতীয় সংগীত চলার সময়ে উঠে দাঁড়ানোর জন্য কোনও ব্যক্তির উপর জোর খাটানো যাবে না। কারণ কেউ যদি উঠে দাঁড়াতে অনিচ্ছুক হন, তার মানে এই নয়, যে তিনি জাতীয়বাদ বিরোধী বা দেশবিরোধী। তবে সিনেমা হলে জাতীয় সংগীত বাজানোরই বিপক্ষে অভিনেত্রী বিদ্যা বালান। তাঁর সাফ কথা, আমি দেশকে ভালবাসি।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর