দেশজুড়ে



দেশদর্পণ ডেস্ক

১৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ২:১৮ অপরাহ্ণ




শ্বাশুড়িকে শ্বাসরোধে হত্যা করে প্রবাসীর স্ত্রীকে গণধর্ষণ

দেশদর্পণ ডেস্ক :: শ্বাশুড়িকে শ্বাসরোধ করে হত্যা শেষে এক গৃহবধুকে গণধর্ষণ করেছে দুর্বত্তরা। আজ শুক্রবার ভোর রাতে চাঁদপুরের ফরিদগঞ্জের দেইচর গ্রামে প্রবাসী একব্যক্তির বাড়ি পাশবিক এই ঘটনা ঘটে।

সংবাদ পেয়ে ঘটনার পরপরই জেলা পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে পুলিশের বিশেষ টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এই ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুজনকে আটক করা হয়েছে।

নিহতের দুই মেয়ে হাজেরা আলম ও মরিয়ম বেগম জানান, তাদের বাবা ইউনুস মিয়া গত ৪০ বছর ধরে সৌদি আরব প্রবাসী। গতবছর রমজানের আগে তাদের ভাই সাইফুল ইসলাম বিয়ে করে তিনিও মধ্যপ্রাচ্যে চলে যান। বাড়িতে শুধু বৃদ্ধা মা জাহানারা বেগম (৬০) তার দুই বোন, ছোটবাই জাহিদুল ইসলাম এবং ভাইয়ের বৌ নিয়ে বসবাস করতেন। শুক্রবার ভোর রাতে কয়েকজন দৃর্বত্ত তাদের বাড়িতে ঢুকে। এ সময় মা জাহানারা বেগমকে শ্বাসরোধ করে পাশে থাকা ভাবিকে ধর্ষণ করে। ঘটনার সময় দুর্বৃত্তরা বসতঘরের অন্যকক্ষে অবস্থান করা তাদেরকে বাইরে থেকে আটকে রাখে।

স্বজনরা আরো জানিয়েছেন, ধর্ষণ শেষে দুর্বৃত্তরা চলে গেলে ধর্ষণের শিকার তাদের ভাবি চিৎকার শুরু করেন। এ সময় অন্য কক্ষে আটকে থাকা লোকদের তাদের প্রতিবেশিরা উদ্ধার করেন।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ বলেন, এমন ঘটনা তার এলাকায় আর কখনো হয়নি। তিনি এই ঘটনায় দায়ীদের খুঁজে বের করে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করেন। অন্যদিকে, দায়ীদের চিহিৃত করে দ্রুত আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে বলে জানিয়েছেন চাঁদপুর জেলা পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার।

ধর্ষণের শিকার গৃহবধুকে ডাক্তারি পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য চাঁদপুর জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বেআ/আবে

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর