জাতীয়



দেশদর্পণ ডেস্ক

১৮ মার্চ ২০১৮, ৪:৫০ অপরাহ্ণ




শনাক্ত হওয়া ১৭ মরদেহ দেশে আসছে সোমবার

দেশদর্পণ ডেস্ক :: নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন বিমানবন্দরে ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্তে নিহতদের মরদেহ আগামীকাল সোমবার দেশে পাঠানো হচ্ছে।

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইমরান আফিফ নেপালের ইউনিভারসিটি টিচিং হাসপাতালে সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘আজ (রবিবার) বিকাল ৪টার মধ্যে শনাক্ত হওয়া ১৭টি লাশ ও আরও যেগুলো শনাক্ত করা হবে সেগুলোসহ সব মরদেহের গোসল সম্পন্ন করে কফিনে তোলা হবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামীকাল সোমবার সকাল ৬টায় মরদেহের জানাজা হবে নেপালে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাসে। তারপর বিমান বাহিনীর বিমানে করে লাশ দেশে পাঠানো হবে।’

নিহতদের স্বজনদের ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘শনাক্ত হওয়া লাশের স্বজন ও বাংলাদেশি ডাক্তাররা ইউএস-বাংলার ফ্লাইটে আগামীকাল (সোমবার) ঢাকা ফিরবেন।’

এর আগে নেপালের ত্রিভুবন ইউনিভার্সিটি টিচিং হাসপাতালে ১৭ বাংলাদেশির মরদেহ শনাক্তের কথা জানানো হয়। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমান বিধ্বস্তের পাঁচ দিন পর ফরেনসিক পরীক্ষা শেষে এসব মরদেহ উপস্থিত নিকট স্বজনদের দেখানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। শনিবার (১৭ মার্চ) সন্ধ্যায় ওই হাসপাতালের মহারাজগঞ্জ ক্যাম্পাসের ইন্সটিটিউট অব মেডিসিন-এর সামনে ফরেনসিক বিভাগের পক্ষ থেকে ১৪টি মরদেহের পরিচয় জানান হাসপাতালটির ফরেনসিক বিভাগের প্রধান প্রমোদ শ্রেষ্ঠা। এ সময় বাংলাদেশি মেডিক্যাল টিমের সদস্য ও ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রধান সোহেল মাহমুদ উপস্থিত ছিলেন। পরে বাংলাদেশ দূতাবাস থেকে আরও তিনজনের পরিচয় জানানো হয়েছে। বাংলাদেশ মেডিক্যাল টিমের সদস্য ডা. ইমাম হোসাইন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শনাক্ত হওয়া নিহত বাংলাদেশিরা হচ্ছেন: অনিরুদ্ধ জামান, তাহিরা তানভীন শশী, মিনহাজ বিন নাসির, রাকিবুল হাসান, মতিউর রহমান, রফিক উজ জামান, তামারা প্রিয়ংময়ী, আকতার বেগম, হাসান ইমাম, এসএম মাহমুদুর রহমান, বিলকিস আরা, বিমানটির পাইলট ক্যাপ্টেন আবিদ সুলতান, কো-পাইলট পৃথুলা রশিদ ও কেবিন ক্রু খাজা সাইফুল্লাহ।

উল্লেখ্য, ১২ মার্চ ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট নেপালের কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় পাশের একটি ফুটবল মাঠে বিধ্বস্ত হয়। ওই বিমানটিতে চার জন ক্রুসহ ৭১ জন আরোহী ছিলেন। এর মধ্যে ৪৯ জন আরোহী নিহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে বিমানটির ৪ জন ক্রুসহ ২৬ জন বাংলাদেশি, ২২ জন নেপালি ও চীনের একজন যাত্রী রয়েছেন। আহত ২২ জন আরোহীর মধ্যে ১০ জন বাংলাদেশি, ১১ জন নেপালি ও একজন মালদ্বীপের।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর