আন্তর্জাতিক



দেশদর্পণ ডেস্ক

২৪ নভেম্বর ২০১৭, ৯:২১ অপরাহ্ণ




মুগাবে আমার পিতার মত : শপথ বক্তব্যে এমারসন

দেশদর্পণ ডেস্ক :: নানা নাটকীয়তার পর জিম্বাবুয়ের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিলেন এমারসন নানগাগবা। শপথ বক্তব্যে নতুন প্রেসিডেন্ট পূর্বসুরী রবার্ট মুগাবেকে সম্মান দেখালেন। স্টেডিয়াম ভর্তি জনগণের সামনে প্রশংসায় ভাসালেন সদ্য পদত্যাগী প্রেসিডেন্টকে। মুগাবেকে নিজের পিতার মত, একজন নেতা ও বিশ্বস্ত সহচর হিসেবে উল্লেখ্য করে দেশের ইতিহাসের প্রতি সম্মান প্রদর্শণপূর্বক পদত্যাগের জন্য ধন্যবাদ জানান এমারসন। বিবিসির সংবাদ।

এদিন নতুন প্রেসিডেন্টকে বরণ করে নিতে ৬০ হাজার নাগরিক উপস্থিত হয়েছিলেন রাজধানী হারারের কাছে জাতীয় ক্রীড়া মাঠে। উল্লেসিত সমর্থক, সেইসাথে উপস্থিত গণ্যমান্য ব্যক্তি ও বিদেশি কূটনীতিকদের সামনে শপথ নেন এমারসন। শপথ শেষে এক বক্তব্যে তিনি জিম্বাবুয়ে ও তার জনগণের সেবা করার প্রতিশ্রুতি দেন। এ জন্য তিনি ঈশ্বরের সাহায্য কামনা করেন।

এদিন সদ্য পদত্যাগ করা প্রেসিডেন্ট রবার্ট মুগাবে উপস্থিত না থাকলেও তার প্রতি ধন্যবাদ ও প্রশংসাসূচক বাক্য নিবেদন করেন এমারসন। তিনি বলেন, ‘কমরেড রবার্ট মুগাবে ব্যক্তিগতভাবে আমার নিকট একজন পিতার মত, একজন নেতা ও পরামর্শ।’

সম্প্রতি বরখাস্ত হওয়ার আগ পর্যন্ত তিনি মুগাবের একজন ঘনিষ্ঠ মিত্র ছিলেন। ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে তাকে মুগাবে বরখাস্ত করলে দেশটিতে রাজনৈতিক সংকট শুরু হয়। এরপর সামরিক বাহিনীর হস্তক্ষেপে গৃহবন্দি হওয়া মুগাবে নানা নাটকীয়তার মধ্য দিয়ে একপর্যায়ে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন। এর আগে বরখাস্তের পরই প্রাণ ভয়ে দক্ষিণ আফ্রিকায় পালিয়েছিলেন কয়েক সপ্তাহ। মুগাবের পদত্যাগ করলে দেশে ফিরে আসেন তিনি।

বক্তৃতায় স্বাধীনতার একজন স্থপতি ও জাতির নেতা হিসেবে উল্লেখ করে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এছাড়া ইতিহাসের ওপর বিশ্বস্ত থেকে তার প্রতি সম্মান প্রদর্শণের জন্য জনগণের প্রতি আহবান করেন।

প্রসঙ্গত, ১৯৮০ সালে ব্রিটিশ উপনিবেশবাদ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর থেকে দীর্ঘ ৩৭ বছর ধরে তিনি স্বৈরাচারী কায়দায় জিম্বাবুয়ে শাসন করেন মুগাবে। এরপর ৯৩ বছর বয়সী মুগাবে উত্তরসুরি হিসেবে তার স্ত্রী গ্রেসকে ক্ষমতায় বসানোর পরিকল্পনা করলে সেনাবাহিনীর হস্তক্ষেপে তার এ পরিকল্পনা ভেস্তে যায়

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর