জাতীয়



দেশদর্পণ ডেস্ক

১১ জানুয়ারি ২০১৯, ৪:৫৫ পূর্বাহ্ণ




বেপরোয়া ট্রাক চালক : গুরুতর আহত অভিনেত্রী অহনা

দেশদর্পণ ডেস্ক :: সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী অহনা রহমান। বুধবার (৯ জানুয়ারি) ভোররাতে দুটি দুর্ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, পুরান ঢাকার একটি অনুষ্ঠান শেষে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে উত্তরার বাসায় ফিরছিলেন অহনা। গাড়ি নিজেই চালাচ্ছিলেন তিনি। উত্তরা লেকড্রাইভ রোডের ৭ নম্বর সেক্টরে রাত সোয়া তিনটার দিকে পাথর বোঝাই একটি ট্রাক অহনার গাড়িকে চাপা দেয়। এতে অহনা উত্তেজিত হয়ে গাড়ি থেকে নেমে ট্রাকচালককে গাড়ি থেকে নামতে বলেন। এ নিয়ে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়ের এক পর্যায়ে চালক ট্রাক সামনে নিয়ে পেছনের গিয়ারে দিয়ে অহনার গাড়িকে আবারও চাপা দেয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে অহনা ট্রাকচালকের দরজায় উঠে তাকে নামতে জোর করেন। চালক তার কথায় পরোয়া না করে গাড়ি টান দেন। অহনা তখন চালকের জানালা ধরে ঝুলতে থাকেন। ট্রাকটি ১২ নম্বর সেক্টরের গিয়ে অহনাকে ফেলে দিতে জোরে বাঁক নেয়। কিন্তু সামলাতে না পেরে ট্রাকটিই বাম দিকে উল্টে পড়ে যায়। অহনা ছিটকে গিয়ে পাথর কুচির ওপর পড়েন। পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

অহনার বোন ইয়াসমিন মিতু বলেন, ‘আমি প্রাইভেট কারে ছিলাম। ট্রাকের দরজা খোলার পর দেখি ড্রাইভারের পায়ের কাছে মদের বোতল। তার হাতেও গাঁজা ছিল। তিনি আসলে গাড়িতেই নেশা করছিলেন। এতটাই নেশাগ্রস্থ ছিলেন যে, অহনা ঝুলে থাকলেও গাড়ি তো থামাননি বরং ৭ নম্বর সেক্টরের ব্রিজের পাশে ল্যাম্পপোস্টেও ধাক্কা দেওয়ার চেষ্টা করেন। চারবার এমন করার পর গাড়ির গতি আরও বাড়িয়ে দেন। ১২ নম্বরে গিয়ে বাঁক নিয়ে কষে ব্রেক করে ড্রাইভার। ভাগ্য ভালো ট্রাকটি বাম পাশে উল্টে যায়। ডানে উল্টালে অহনাকে আর পাওয়া যেত না।’ বৃহস্পতিবার দুপুরে উত্তরায় থানায় মামলা করেছেন জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘ঘটনা এখানেই শেষ নয়, এর পরপরই ট্রাকচালক সমিতির কয়েক নেতা হুমকি দিয়েছেন আমরা মামলা না ওঠালে অহনাকে দেখে নেবেন।’

উত্তরা পশ্চিম থানার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে এর উপ-পরিদর্শক (এসআই) হুমায়ূন কবীর বলেন, ‘এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। চালক ও হেলপারকে গ্রেফতারের জন্য তল্লাশি চলছে।’
থানা সূত্রে জানা যায়, ট্রাকচালকের নাম সুমন বলে তারা ধারণা করছে। শিগগিরই তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হবে মনে করছেন তারা।

এদিকে অহনার শারীরিক অবস্থা বেশ খারাপ বলে জানা গেছে। দুর্ঘটনায় তার কোমরের হাড়ের সংযোগস্থল সরে গেছে। তার পিঠও থেঁতলে গেছে ও পাথর কুচি ঢুকে গিয়েছিল। তিনি বর্তমানে উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সূত্র- বাংলা ট্রিবিউনকে

অভিনেত্রী অহনাকে ঝুলিয়েই ট্রাক চালালো ড্রাইভার
দেশদর্পণ ডেস্ক :: সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছেন ছোট পর্দার জনপ্রিয় অভিনেত্রী অহনা রহমান। বুধবার (৯ জানুয়ারি) ভোররাতে দুটি দুর্ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, পুরান ঢাকার একটি অনুষ্ঠান শেষে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে উত্তরার বাসায় ফিরছিলেন অহনা। গাড়ি নিজেই চালাচ্ছিলেন তিনি। উত্তরা লেকড্রাইভ রোডের ৭ নম্বর সেক্টরে রাত সোয়া তিনটার দিকে পাথর বোঝাই একটি ট্রাক অহনার গাড়িকে চাপা দেয়। এতে অহনা উত্তেজিত হয়ে গাড়ি থেকে নেমে ট্রাকচালককে গাড়ি থেকে নামতে বলেন। এ নিয়ে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়ের এক পর্যায়ে চালক ট্রাক সামনে নিয়ে পেছনের গিয়ারে দিয়ে অহনার গাড়িকে আবারও চাপা দেয়। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে অহনা ট্রাকচালকের দরজায় উঠে তাকে নামতে জোর করেন। চালক তার কথায় পরোয়া না করে গাড়ি টান দেন। অহনা তখন চালকের জানালা ধরে ঝুলতে থাকেন। ট্রাকটি ১২ নম্বর সেক্টরের গিয়ে অহনাকে ফেলে দিতে জোরে বাঁক নেয়। কিন্তু সামলাতে না পেরে ট্রাকটিই বাম দিকে উল্টে পড়ে যায়। অহনা ছিটকে গিয়ে পাথর কুচির ওপর পড়েন। পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

অহনার বোন ইয়াসমিন মিতু বলেন, ‘আমি প্রাইভেট কারে ছিলাম। ট্রাকের দরজা খোলার পর দেখি ড্রাইভারের পায়ের কাছে মদের বোতল। তার হাতেও গাঁজা ছিল। তিনি আসলে গাড়িতেই নেশা করছিলেন। এতটাই নেশাগ্রস্থ ছিলেন যে, অহনা ঝুলে থাকলেও গাড়ি তো থামাননি বরং ৭ নম্বর সেক্টরের ব্রিজের পাশে ল্যাম্পপোস্টেও ধাক্কা দেওয়ার চেষ্টা করেন। চারবার এমন করার পর গাড়ির গতি আরও বাড়িয়ে দেন। ১২ নম্বরে গিয়ে বাঁক নিয়ে কষে ব্রেক করে ড্রাইভার। ভাগ্য ভালো ট্রাকটি বাম পাশে উল্টে যায়। ডানে উল্টালে অহনাকে আর পাওয়া যেত না।’ বৃহস্পতিবার দুপুরে উত্তরায় থানায় মামলা করেছেন জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘ঘটনা এখানেই শেষ নয়, এর পরপরই ট্রাকচালক সমিতির কয়েক নেতা হুমকি দিয়েছেন আমরা মামলা না ওঠালে অহনাকে দেখে নেবেন।’

উত্তরা পশ্চিম থানার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে এর উপ-পরিদর্শক (এসআই) হুমায়ূন কবীর বলেন, ‘এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। চালক ও হেলপারকে গ্রেফতারের জন্য তল্লাশি চলছে।’
থানা সূত্রে জানা যায়, ট্রাকচালকের নাম সুমন বলে তারা ধারণা করছে। শিগগিরই তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হবে মনে করছেন তারা।

এদিকে অহনার শারীরিক অবস্থা বেশ খারাপ বলে জানা গেছে। দুর্ঘটনায় তার কোমরের হাড়ের সংযোগস্থল সরে গেছে। তার পিঠও থেঁতলে গেছে ও পাথর কুচি ঢুকে গিয়েছিল। তিনি বর্তমানে উত্তরার ক্রিসেন্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সূত্র- বাংলা ট্রিবিউনকে

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর