জাতীয়, রাজনীতি



দেশদর্পণ ডেস্ক

১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ১০:৫২ অপরাহ্ণ




বিএনপিতে ভাঙন এখন সময়ের ব্যাপার: কামরুল ইসলাম

দেশদর্পণ ডেস্ক :: খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেছেন, ‘দুর্নীতির বরপুত্র তারেক রহমানকে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের দায়িত্ব দেওয়ায় সিদ্ধান্তে দলের মধ্যে ভাঙন সৃষ্টি হয়েছে। বিএনপির নেতাদের সবাই দুর্নীতিবাজ নয়। বিবেকবান দেশপ্রেমিক নেতারা দলের এই সিদ্ধান্ত মেনে নেবে না।’

সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের কনফারেন্স লাউঞ্জে ‘প্রতিহিংসার রাজনীতি আওয়ামী লীগ করে না’ শীর্ষক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন খাদ্যমন্ত্রী। সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ভাষাসৈনিক অ্যাডভোকেট গাজীউল হকের ৯০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে এ সভার আয়োজন করে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট।

খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘দুর্নীতির দায়ে খালেদা জিয়া কারাগারে রয়েছেন আর ফেরারি আসামি তারেক রহমান এখন ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসনের দায়িত্ব পালন করছেন। সংবিধান পরিবর্তন করে দলের এমন সিদ্ধান্তে বিএনপিতে ভাঙনের সৃষ্টি হবে, তা শুধু এখন সময়ের ব্যাপার। বিএনপিতে ভাঙ্ন সৃষ্টি করতে সরকারের কোনো ভূমিকার প্রয়োজন হবে না। সরকার এমন কিছু করতেও চায় না।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অধীনেই আগামী নির্বাচন হবে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘খালেদা জিয়া নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারবে কি পারবে না তা শুধু আদালতই সিদ্ধান্ত নিবে। কোনো প্রকার তত্ত্বাবধায়ক বা সহায়ক সরকারের অধীনে আগামী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে না।’

তবে কেউ নির্বাচন বানচালের চেষ্টা করলে তার পরিণতি ভয়াবহ হবে বলে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন খাদ্যমন্ত্রী।

প্রতিহিংসার রাজনীতি আওয়ামী লীগ করে না উল্লেখ করে কামরুল ইসলাম বলেন, ‘বিএনপি শান্তিপূর্ণ মানববন্ধনের নামে আজ (সোমবার) প্রেস ক্লাবের সামনে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছে। মানুষ এবং যান চলাচলে ব্যাঘাত সৃষ্টি করেছে। জনগণ এমন রাজনীতি দেখতে চায় না।’

তিনি আরও বলেন, দুর্নীতির দায়ে খালেদা জিয়ার এ শাস্তি একজন রাজনীতিবিদ হিসেবে আমাদের জন্য লজ্জাজনক। এ মামলার রায় অনেক আগেই নিষ্পত্তি হয়ে যেত। কিন্তু বিএনপির আইনজীবিরা নির্বাচনী মাঠ গরম করার জন্য এ মামলা দির্ঘায়িত করেছেন।

চিত্ত রঞ্জন দাসের সভাপতিত্ত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন শামসুল হক টুকু, অরুন সরকার রানা, জাকারিয়া হানিফ, মাওলা রেজা, হাবিবুর রিপন প্রমুখ।

প্র.প/আ-প্র.প

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর