সোশ্যাল মিডিয়া



দেশদর্পণ ডেস্ক

১ ডিসেম্বর ২০১৭, ১০:৪০ অপরাহ্ণ




বাবা আনিসুল হককে নিয়ে ছেলে নাভিদুলের আবেগঘন পোস্ট

 তাঁর মৃত্যুর খবর জানাজানি হওয়ার পর থেকেই ফেসবুক ভরে গেছে শোকগাথায়। ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আনিসুল হককে নিয়ে স্মৃতিচারণ, সম্মান জানিয়েই চলেছেন হাজারো মানুষ। মানুষের এই আবেগ স্পর্শ করেছে সদ্য বাবা হারা নাভেদুল হককে। দেশদর্পণ পাঠকদের জন্য নাভিদ হকের পোস্টের কিছু অংশ তুলে ধরা হলো-

‘সাধারণ মানুষ যেভাবে তাকে স্মরণ করে ও শ্রদ্ধা জানিয়ে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিচ্ছেন, তা দেখে কেঁদেছি। মেয়র হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষেও দেশের মানুষ তাকে তার কৃতকর্মের জন্য মনে রাখবে’, আনিসুল হকের এ ইচ্ছার কথাও ফেইসবুক পোস্টে জানান তার ছেলে নাভিদ হক।

আনিসুল হকের সঙ্গে কাটানো সময়ের স্মৃতিচারণ করে ছেলে নাভিদুল হক লেখেন, ‘তার (আনিসুল হক) সাথে ছোটবেলার খুব বেশি স্মৃতি নেই। কারণ আমার বাবা ব্যবসা এবং পরিবারের ভবিষ্যৎ নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন। তিনি ছিলেন সুশীল সমাজের একজন সক্রিয় সদস্য এবং সত্যিকারের দেশপ্রেমিক। আমি যত বড় হতে থাকলাম, আমাদের বন্ধন আরও শক্ত হতে থাকল। তিনি ছিলেন আমার পরামর্শদাতা, আমার সঙ্গী, আমার বস এবং আমার পথনির্দেশক। গত কয়েক বছর আমরা দুজন মিলে আমাদের সেরা সময়টুকু কাটিয়েছি। তিনি যখন ডিএনসিসি মেয়র হিসেবে প্রার্থী হয়েছিলেন তখন আমি তার পাশে দাঁড়িয়েছিলাম। তিনি আমার কাছে তার পরবর্তী পদক্ষেপ পরিকল্পনা ও স্বপ্নগুলো জানাতেন।’

নাভিদ হক লিখেছেন, আমি আপনাদের বলতে পারি, তিনি আমাদের মধ্যে শ্রেষ্ঠ গুণগুলো বণ্টন করেছেন। সততা দিয়ে তিনি কৃতিত্ব অর্জন করেছেন। যারা তার সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন তারা যথেষ্ট ভাগ্যবান ছিলেন। কারণ যারা তার সাথে সময় কাটিয়েছে, তার কথা, হাসি, উচ্চারণ, কবিতা তাদের স্পর্শ করেছে এবং সেসব স্মৃতি তাদের চিরকাল মনে থাকবে। তিনি সব সময় বলতেন মেয়র না থাকলেও মানুষ যাতে তাকে মনে রাখে। আব্বু, যখন তুমি বেহেশত থেকে তাকাবে, তখন দেখবে লাখ লাখ মানুষ তোমাকে মনে করছে। আমি তোমাকে প্রতিদিন অনুভব করব। আমি অনেক ভাগ্যবান তোমার মতো একজন কিংবদন্তিকে বাবা হিসেবে পেয়ে’।

ফেসবুক যারা তার বাবাকে নিয়ে স্ট্যাটাস দিয়েছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি লিখেন, ‘যারা আমার বাবার স্মরণে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন তাদের লেখাগুলো দেখে আমি কেঁদেছি। আমি আপনাদের প্রতি কৃতজ্ঞ।’

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর