আন্তর্জাতিক, লিড নিউজ



দেশদর্পণ ডেস্ক

6 January 2021, 2:15 AM




দেশে প্রয়োগের ১৫ দিনের মধ্যে টিকা রপ্তানি শুরু করবে ভারত

মহামারি করোনাভাইরাসের টিকা নিজ দেশে প্রয়োগ শুরু করার ১৫ দিনের মধ্যে তা রপ্তানি শুরু করবে ভারত। দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তার বরাত দিয়ে মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) এই তথ্য জানিয়েছে বিবিসি।

অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা উদ্ভাবিত টিকা ভারতে তৈরি করছে দেশটির সেরাম ইনস্টিটিউট। গত ১৩ ডিসেম্বর ওই টিকা কেনার জন্য বাংলাদেশ সরকার সেরাম ইনস্টিটিউট ও বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের সঙ্গে চুক্তি করে। ওই চুক্তি অনুযায়ী, জানুয়ারি থেকে পরবর্তী ছয় মাসে ৫০ লাখ করে মোট ৩ কোটি টিকা পাওয়ার কথা বাংলাদেশের।

তবে এর আগে সোমবার খবর রটে ভারতের যে প্রতিষ্ঠান থেকে এই টিকা কেনা হচ্ছে, তারা বলেছে, আগামী দুই মাসে তারা আগে স্থানীয় চাহিদা মেটাবে। এরপরই আগ্রহী দেশগুলোয় টিকা রপ্তানি করা হবে। এর পরই বাংলাদেশের টিকা পাওয়া নিয়ে শঙ্কার কথা শোনা যায়। এদিনই সরকারের বিভিন্ন পক্ষ থেকে টিকা নিয়ে অশ্চিয়তার কথা উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, চুক্তি আছে, টিকা পাবো।

স্থানীয় চাহিদা মেটানোর পর অন্য দেশে টিকা রপ্তানির খবর প্রত্যাখ্যান করে বিবিসিকে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই কর্মকর্তা বলেন, টিকা প্রয়োগ শুরু হলে ১৫ দিনের মধ্যে দক্ষিণ এশিয়ায় আমাদের প্রতিবেশী কয়েকটি দেশে রপ্তানির অনুমতি দেওয়া হবে। এর মধ্যে কিছু টিকা উপহার হিসেবে দেওয়া হবে। বাকি টিকা রপ্তানি করা হবে। এগুলো দেওয়া হবে আমাদের সরকার যে দামে টিকা কিনবে, সেই দামেই।

তিনি বলেন, বিশ্বের সবচেয়ে বড় টিকা উৎপাদনকারী দেশ হিসেবে ভারত প্রতিবেশী ও পুরো বিশ্বের প্রতি যে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ, সে বিষয়ে পুরোপুরি সচেতন।

বিশ্বে প্রতিবছর যে পরিমাণ টিকা উৎপাদন হয়, তার ৬০ শতাংশের মত উৎপাদন হয় ভারতে। বাংলাদেশসহ অনেক দেশই এবার দেশটির কাছ থেকে করোনার টিকা পাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী রাজেশ ভূষণ মঙ্গলবার দিল্লিতে সাংবাদিকদের বলেছেন, ব্যবহারের অনুমোদন পাওয়ার ১০ দিনের মধ্যেই দেশটিতে টিকা প্রয়োগ শুরু হবে। দুটি কোভিড ভ্যাকসিনের কোনটির রপ্তানির ওপরেই কেন্দ্রীয় সরকার কোনরকম নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি। এটা স্পষ্ট করে জানিয়ে দেওয়া দরকার।