আন্তর্জাতিক



দেশদর্পণ ডেস্ক

২৯ নভেম্বর ২০১৭, ৪:৩৪ অপরাহ্ণ




তিনদিন পর বালিতে বিমান চলাচল শুরু

দেশদর্পণ ডেস্ক :: ইন্দোনেশিয়ার পর্যটন এলাকা বালির মাউন্ট অং আগ্নেয়গিরিতে অগ্ন্যুৎপাতের কারণে প্রায় তিনদিন বন্ধ থাকার পর সেখানকার প্রধান বিমানবন্দরে বিমান চলাচল শুরু হয়েছে। যদিও বাতাসের দিক পরিবর্তন হলে বিমান চলাচল আবার বন্ধ হয়ে যেতে পারে বলে জানিয়েছেন দেশটির কর্মকর্তারা।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি আজ বুধবার (২৯ নভেম্বর) এ খবর জানায়। এর আগে এক বিজ্ঞপ্তিতে দেশটির পরিবহণ মন্ত্রণালয় জানায়, পরিস্থিতি প্রতিকূলে থাকায় বুধবার সকাল ৭টা পর্যন্ত বিমান চলাচল স্থগিত থাকবে।

ইন্দোনেশিয়া জাতীয় দুর্যোগ সংস্থা জানায়, ভারত মহাসাগরে উৎপন্ন ঘূর্ণিঝড়ে অগ্ন্যুৎপাতে উৎপন্ন শিখা দেশটির দক্ষিণ-পশ্চিমাংশ হয়ে বালির প্রধান বিমানবন্দরের দিকে ছড়িয়ে পড়ছিল। এখন তা বন্ধ হওয়ায় ফ্লাইট চালু করা হয়েছে। তবে শহরটির বাড়ি-ঘর ও জমির ওপর ছাইয়ের আস্তরণ পড়েছে।

বালির প্রধান পর্যটনকেন্দ্র কুতা ও সেমিনিয়াক থেকে ৭০ কিলোমিটার দূরে আগ্নেয়গিরিটির অবস্থান। কয়েকদিন ধরে অগ্ন্যুৎপাতের কারণে বালির আকাশে প্রায় ৩ কিলোমিটার (২ মাইল) উচু পর্যন্ত ছাইয়ের মেঘ জমেছে।

সোমবার বড় ধরনের অগ্ন্যুৎপাতের আশঙ্কায় সর্বোচ্চ সর্তকতা জারি করা হয়। এরইমধ্যে প্রায় এক লাখ মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়ার আদেশ দেওয়া হয়েছে। সাময়িক আশ্রয়কেন্দ্রে রয়েছেন ২৫ হাজার মানুষ। আর গত কয়েক মাসে প্রায় এক লাখ ৪০ হাজার মানুষ স্থানান্তরিত হয়েছেন।

এর আগে রবিবার ইন্দোনেশিয়ার আগ্নেয়গিরি ও ভূতাত্ত্বিক দুর্যোগ প্রশমন কেন্দ্র ওই এলাকায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জানিয়ে রেড অ্যালার্ট জারি করেছিল।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর