সংগঠন সংবাদ



দেশদর্পণ ডেস্ক

২৬ অক্টোবর ২০১৭, ২:০৪ অপরাহ্ণ




জিডিপি বেড়েছে, আয় বেড়েছে,, কিন্তু এই উন্নয়ন কার জন্য : সিলেটে মেনন

দেশদর্পণ ডেস্ক :: বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টি কেন্দ্রীয় সভাপতি এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন বলেছেন, ‘বিশ্বে প্রতি বছর কোটিপতির সংখ্যা বাড়ছে। আমাদের দেশেও ব্যতিক্রম নয়। অথচ ১৬ কোটি মানুষের দেশে ৩ কোটিরও বেশি গরীব মানুষ। বাংলাদেশে জিডিপি বেড়েছে। আয় বেড়েছে ভাল, কিন্তু এই উন্নয়ন কার জন্য।’ তিনি বলেন, পুঁজির বিকাশও নতুন নতুন প্রজন্মলোক বেরিয়ে আসছে। উন্নয়নের মূল সূত্র শ্রমিক। কিন্তু উন্নয়নের সুফল পুঁজিপতিদের হাতে চলে যাচ্ছে।’

তিনি আজ বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) জেলা পরিষদ মিলনায়তনে রুশ বিপ্লবের শতবর্ষ উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টি সিলেট জেলা কমিটি আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী বলেন, ‘আজকে সারা বিশ্বে সমাজতন্ত্রের প্রতিবন্ধকতা রয়েছে। আমরা যেখানে দাঁড়িয়ে আছি সেখানে তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধের দামামা বাজতে শুরু করেছে। আমেরিকান সাম্রাজ্যবাদ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে। ইরানে পারমানিবক চুক্তির ব্যক্তয় ঘটিয়ে ট্রাম্প চিৎকার শুরু করেছেন। উত্তর কুরিয়াকে ধ্বংস করার হুমকি দিচ্ছেন।’ তিনি বলেন, ‘বিশ্বে প্রতি বছর কোটিপতির সংখ্যা বাড়ছে। আমাদের দেশেও তার ব্যতিক্রম নয়। যেখানে ১৬ কোটি মানুষের দেশে ৩ কোটিরও বেশি গরীব মানুষ। বাংলাদেশে জিডিপি বেড়েছে। আয় বেড়েছে ভাল, কিন্তু এই উন্নয়ন কার জন্য। পুঁজির বিকাশও নতুন নতুন প্রজন্মলোক বেরিয়ে আসছে। উন্নয়নের মূল সূত্র শ্রমিক কিন্তু উন্নয়নের সুফল পুঁজিপতিদের হাতে চলে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, মহান রুশ বিপ্লবের চেতনায় শাণিত হয়েই আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়েছিলাম। সেজন্যই আমাদের মহান সংবিধানের মূলনীতিতে সমাজতন্ত্রের ঠাঁই পেয়েছে।

বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি সিলেট জেলা সভাপতি আবুল হোসেনের সভাপতিত্বে ও সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য ইন্দ্রানী সেন শম্পার পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যারয়ের অধ্যাপক ড. সুশান্ত কুমার দাশ, শাহজালাল সিটি কলেজের অধ্যাপক গোলাম রাব্বানী, শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সহকার অধ্যাপক সরকার সুহেল রানা।

এর আগে শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি সিলেট জেলা কমিটি সাধারণ সম্পাদক কমরেড সিকন্দর আলীসহ ছাত্রমৈত্রী। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন যুব মৈত্রী, নারী মুক্তি সদস্য, শ্রমিক ফেডারেশনের প্রতিনিধিবৃন্দ।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর