সিলেট প্রতিক্ষণ



দেশদর্পণ ডেস্ক

২৯ অক্টোবর ২০১৭, ৮:১০ পূর্বাহ্ণ




ছেলেসহ রাগীব আলী জামিনে মুক্তি

দেশদর্পন ডেস্ক :: সিলেটের তারাপুর চা-বাগানের ভূমি আত্মসাতে ভূমি মন্ত্রণালয়ের স্মারক (চিঠি) জালিয়াতি মামলায় দণ্ডিত সিলেটের আলোচিত শিল্পপতি রাগীব আলী ও তার ছেলে আবদুল হাই জামিনে মুক্তি পেয়েছেন।

আজ রোববার (২৯ অক্টোবর) দুপুর সোয়া ১টার দিকে সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে মুক্তি পান পিতা-পুত্র।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) সকালে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি আব্দুল ওয়াহাব মিয়ার নেতৃত্বাধীন বিচারপতি ইমান আলী, বিচাপতি সৈয়দ মাহমুদ হাসান, বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর বেঞ্চ রাষ্ট্রপক্ষের করা আপিল খারিজের আদেশ দেন। ফলে পিতা-পুত্রের জামিন আদেশ বহাল থাকে।

সিলেট কেন্দ্রীয় কারাগারের জেল সুপার আব্দুল জলিল রাগীব আলী ও তাঁর ছেলের মুক্তির খবর নিশ্চিত করে বলেন, আজ সকালে আদালত থেকে মুক্তির আদেশ কারাগারে পৌঁছালে দুপুর সোয়া ১টার দিকে তাদেরকে মুক্তি দেয়া হয়।

প্রসঙ্গত, দেবোত্তর ওই সম্পত্তি আত্মসাতের জন্য জালিয়াতির মাধ্যমে সরকারি আদেশ তৈরির অভিযোগে ২০০৫ সালের ২ নভেম্বর সিলেট কোতোয়ালি থানায় মামলাটি করেন সহকারী কমিশনার (ভূমি)। এ মামলায় গত ২ ফেব্রুয়ারি সিলেটের মুখ্য মহানগর হাকিম রায় দেন। রায়ে চারটি ধারায় তাদের ১৪ বছরের কারাদণ্ডাদেশ ও প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। সব সাজা একসঙ্গে চলবে বলে রায়ে উল্লেখ করায় কার্যত তাদের ছয় বছর কারাদণ্ড হয়েছে।

এই দণ্ডাদেশের রায়ের বিরুদ্ধে ১৬ ফেব্রুয়ারি দণ্ডপ্রাপ্তরা মহানগর দায়রা জজ আদালতে আপিল করেন। যা শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে।

এর আগে গত ২৩ নভেম্বর ভারতের করিমগঞ্জ ইমিগ্রেশন পুলিশের হাতে রাগীব আলী ও গত ১২ নভেম্বর ভারত থেকে জকিগঞ্জ এসে গ্রেপ্তার হন আবদুল হাই। বিচারিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে গত ১৬ ফেব্রুয়ারি রাগীব আলী ও তার ছেলে সিলেট মহানগর দায়রা জজ আদালতে আপিল করেন।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর