নিজস্ব প্রতিবেদক
Ad Space
সিলেটে করোনায় অধ্যাপক ও আইনজীবীর মৃত্যু

মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে সিলেটে মারা গেছেন এক বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক ও এক আইনজীবী। তার মধ্যে নিহত অধ্যাপক আবু বকর সিদ্দিক (৬৪)  সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি ও ইমিউনোলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ছিলেন এবং নিহত আইনজীবী শুভঙ্কর দাস চন্দন সিলেট জেলা বারের সদস্য ছিলেন।

সিকৃবির অধ্যাপক আবু বকর সিদ্দিক শনিবার রাতে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বদরুল ইসলাম শোয়েব। তিনি বলেন, অধ্যাপক আবু বকর পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ঢাকায় অবস্থান করছিলেন। গত ২০ আগস্ট তাঁর করোনার সংক্রমণ শনাক্ত হয়। এর চার দিন পর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে প্রথমে তাঁকে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে তাঁকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ছিলেন। শনিবার রাতে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়। গ্রামের বাড়ি বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জে তাঁকে দাফন করা হবে বলে পরিবারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, অধ্যাপক আবু বকর সিদ্দিক সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি, অ্যানিমেল ও বায়োমেডিকেল অনুষদের ডিন, অর্থ ও হিসাব শাখার পরিচালকসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেছেন। তাঁর মৃত্যুতে সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. মতিয়ার রহমান হাওলাদার শোক প্রকাশ করেছেন। শোকবার্তায় তাঁরা শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান।

অপরদিকে, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আজ রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকালে সিলেটের শহীদ ডা. শামসুদ্দিন হাসপাতালে মৃত্যুকরণ করেন সিলেটের আইনজীবী শুভঙ্কর দাস চন্দন। তিনি সিলেট জেলা আইনজীবি সমিতির জ্যেষ্ঠ সদস্য ছিলেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাসপাতালে আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা, সুশান্ত কুমার মহাপাত্র।