আন্তর্জাতিক



দেশদর্পণ ডেস্ক

২০ আগস্ট ২০২০, ৮:৩৬ অপরাহ্ণ




কমলা হ্যারিস ভাইস প্রেসিডেন্টপদে মনোনয়ন পেলেন

মার্কিন সিনেটর কমলা হ্যারিস দেশটির ডেমোক্রেটিক পার্টির ভাইস প্রেসিডেন্টের চূড়ান্ত মনোনয়ন পেয়েছেন। ডেমোক্র্যাটিক পার্টির জাতীয় সম্মেলনের তৃতীয় রাতে বুধবার মনোনয়ন নিশ্চিত হওয়ার পর এশীয়-আমেরিকান এই নারী আগামী নভেম্বরের নির্বাচনে জো বাইডেনকে নির্বাচিত করতে ভোটারদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

একই সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ব্যর্থ নেতা হিসেবে কাঠগড়ায় তুলে বলেছেন, করোনাভাইরাস মহামারিতে ট্রাম্পের ব্যর্থ নেতৃত্বের মাশুল জীবন এবং জীবিকার মাধ্যমে গুণছে মানুষ।

ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্স বলছে, প্রথম কৃষ্ণাঙ্গ এবং এশীয় আমেরিকান হিসেবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রধান কোনও রাজনৈতিক দলের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন পেয়ে ইতিহাস গড়লেন কমলা হ্যারিস। ক্যালিফোর্নিয়ার এই সিনেটর বলেছেন, ট্রাম্পের বিভাজনমূলক নেতৃত্ব দেশকে একটি ‘বাঁকে’ নিয়ে গেছে। আগামী ৩ নভেম্বরের নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় জো বাইডেনকে ভোট দিতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

বাইডেনের নিজ শহর উইলমিংটনের ডেলাওয়ারের এক অনুষ্ঠান সেন্টারে কমলা হ্যারিস বলেন, ক্রমাগত বিশৃঙ্খলা আমাদের ভাসমান করে তুলেছে। অযোগ্য প্রেসিডেন্ট আমাদের ভয় অনুভব করতে বাধ্য করছেন। তার উদাসীনতা আমাদের একাকীত্ব করে তুলেছে। এবার অনেক হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘আমাদের এমন একজন প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত করতে হবে…যিনি আমাদের সবাইকে— কৃষ্ণাঙ্গ, শেতাঙ্গ, লাতিন, এশীয়, আদিবাসীদের ঐক্যবদ্ধ করবেন। ভবিষ্যতে আমরা যা সম্মিলিতভাবে অর্জন করতে চাই, তিনি তাতে নেতৃত্ব দেবেন। জো বাইডেনকে আমাদের অবশ্যই নির্বাচিত করতে হবে।’

হ্যারিসের বক্তৃতার আগে একই অনুষ্ঠানে কথা বলেন ডেমোক্র্যাট দলীয় সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি বর্তমান রিপাবলিকান দলীয় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের তীব্র সমালোচনা করেন। ওবামা বলেন, ডোনাল্ড ট্রাম্প ‘নিজেকে এবং তার বন্ধুদের সহায়তা করার জন্য’ হোয়াইট হাউসের ক্ষমতার ব্যবহার করেছেন।

বারাক ওবামার প্রেসিডেন্টের মেয়াদে ২০০৯ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন জো বাইডেন। সাবেক এই ভাইস প্রেসিডেন্টকে নিয়ে বেশ আশাবাদী ওবামা।

ট্রাম্পের সমালোচনা করে তিনি বলেন, প্রায় চার বছর হয়ে গেলেও কোনও কাজেই আগ্রহ দেখা যায়নি তার (ট্রাম্পের)। প্রেসিডেন্টের কাজকে আরেকটি রিয়্যালিটি শো বানিয়ে এবং এর ব্যবহার করে নিজের দিকে মনযোগ আকর্ষণ করা ছাড়া অন্য কোনও আগ্রহ দেখা যায়নি তার।

নভেম্বরের নির্বাচনে জয়ী হলে যুক্তরাষ্ট্রে সবচেয়ে বয়স্ক প্রেসিডেন্টের ইতিহাস গড়বেন জো বাইডেন। এবারের নির্বাচনে রিপাবলিকান দলীয় ডোনাল্ড ট্রাম্পের শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে মনে করা হচ্ছে ৭৭ বছর বয়সী বাইডেনকে। অনেকেই ধারণা করছেন, নির্বাচিত হলে কেবলমাত্র এক মেয়াদেই দায়িত্ব পালন করবেন তিনি। তবে এ বছর ভাইস প্রেসিডেন্টের মনোনয়ন পাওয়ায় ২০২৪ সালের নির্বাচনে ৫৫ বছর বয়সী কমলা হ্যারিস ডেমোক্র্যাটের প্রেসিডেন্ট পদের অন্যতম প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে হাজির হতে পারেন।

ডেমোক্র্যাটের ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন পাওয়া কমলা হ্যারিস ক্যালিফোর্নিয়ার সিনেটর। অ্যাটর্নি জেনারেল এবং সান ফ্রান্সিসকোর ডিস্ট্রিক্ট অ্যাটর্নি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। তার জন্মপরিচয় এবং কাজের অভিজ্ঞতাও বিচিত্র। মা ভারতের, পিতা জ্যামাইকার।

গত সপ্তাহে মার্কিন নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট দলীয় ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে কমলা হ্যারিসকে বেছেন নেন জো বাইডেন।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর