জাতীয়, লিড নিউজ



দেশদর্পণ ডেস্ক

২ মার্চ ২০১৮, ৩:৫২ পূর্বাহ্ণ




ঐতিহাসিক পতাকা উত্তোলন দিবস আজ

দেশদর্পণ ডেস্ক :: আজ ২ মার্চ। ১৯৭১ সালে এই দিনেই পূর্ব পাকিস্তানের ভূখণ্ডে উত্তোলন করা হয় স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা। পাকিস্তানি শাসক গোষ্ঠীর শোষণ আর নিপীড়নের বিরুদ্ধে তৎকালীন ডাকসু নেতাদের উদ্যোগে সেদিন সাড়া দিয়েছিলেন আমজনতা। বিশ্লেষকরা বলছেন, সেদিনের পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে স্বাধীন বাংলাদেশের বীজ বোনা হয়েছিলো।

কারফিউ ভেঙ্গে নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ জড়ো হতে থাকেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায়। সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনের সামনে ছাত্র-জনতার বিশাল সমাবেশে তৎকালীন ডাকসু ভিপি আ স ম আব্দুর রব ও ডাকসু নেতারা উত্তোলন করেন স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম পতাকা।

অকুতোভয় ছাত্র সমাজ ও জনতা পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীর রক্তচক্ষু উপেক্ষা করে জানিয়ে দিলেন বাঙালিরা তাদের কাছে মাথা নত করবে না।

তৎকালীন ডাকসু ভিপি আ স ম আব্দুর রব বলেন, `২ মার্চ আমি যখন পতাকাটা উঁচিয়ে ধরলাম তখন গোটা মাঠ জুড়ে জয়বাংলা ধ্বনিতে মুখরিত হলো। এটা একটা ঐতিহাসিক ঘটনা।`

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সেদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়েই বইতে শুরু করেছিলো মুক্তির সুবাতাস।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. আবু মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, `১৯৭১ সালে এই পতাকাটি আমাদের ভূখণ্ড ছাড়িয়ে বিশ্বব্যাপী আমাদের পরিচিতি তুলে ধরেছে।`

কিন্তু, সেদিন দেশের ক্রান্তিলগ্নে ছাত্রসমাজ যে ভূমিকা রেখেছিলো আজ তা অনুপস্থিত। আর এক্ষেত্রে সুস্থ ধারার রাজনীতির মাধ্যমে ছাত্র সমাজ হারানো গৌরব ফিরে পাবে এমন প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের।

বেআ/আবে

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর