লাইফ স্টাইল



দেশদর্পণ ডেস্ক

১৭ জুন ২০২০, ৩:২৬ অপরাহ্ণ




এই সময়ে গলাব্যথা হলে করণীয়

মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রাথমিক উপসর্গের একটি গলাব্যথা। যদি কারও গলাব্যথার সঙ্গে শুকনো কাশি থাকে তাহলে তা খারাপ সংকেত দেয়। এ কারণে শুরু থেকেই এই সমস্যার ব্যাপারে সতর্ক থাকা উচিত।

করোনার যেহেতু এখন পর্যন্ত কোন প্রতিষেধক নেই এ কারণে চিকিৎসকের পরামর্শে ওষুধ গ্রহণের পাশাপাশি ঘরোয়া কিছু চিকিৎসা পদ্ধতি বেছে নিতে পারেন। যেমন-

মধু-আদার মিশ্রণ: মধু ও আদায় থাকা অ্যান্টিইনফ্ল্যামেটরী উপাদান জীবাণুর সঙ্গে লড়াই করতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে সংক্রমণের ঝুঁকি কমায়। আদা গলা ব্যথার সমস্যা কমাতে সাহায্য করে। আদার সঙ্গে মধু মেশালে তা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। অনন্য এই মিশ্রণটি কফ পরিষ্কার করতে সাহায্য করে। সেই সঙ্গে গলার ভেতরের অস্বস্তি কমায়।

গরম পানি দিয়ে কুলিকুচি: গলাব্যথা এবং গলার ভেতরের জীবাণু পরিষ্কার করার অন্যতম উপায় হচ্ছে কুলিকিুচি করা। গলাব্যথা শুরুর সঙ্গে সঙ্গে দিনে হালকা গরম পানিতে আধা চামচ লবণ দিয়ে কুলিকুচি করতে হবে। এতে গলা ভেতরের আর্দ্রতাও বজায় থাকবে।

আপেল সিডার ভিনেগার: আপেল সিডার ভিনেগারে থাকা অ্যান্টি ইনফ্ল্যামেটরী উপাদান ঠান্ডা-কাশি সারাতে উপকারী। এটি গলাব্যথা সারাতেও কাজ করে। গলাব্যথা কমাতে এক গ্লাস হালকা গরম পানিতে এক টেবিল চামচ আপেল সিডার ভিনেগার মিশিয়ে পান করুন। স্বাদ ও গুণ বাড়াতে সামান্য মধু যোগ করতে পারেন।

নারকেল তেল: খাবারের জন্য আলাদা নারকেল তেল পাওয়া যায়। এই তেল গলাব্যথা দূর করতেও দারুণ কার্যকরী। এই তেল ব্যবহারে গলার ভেতরে পরিষ্কার হয়। সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

মনে রাখবেন, এই পদ্ধতিগুলো গলাব্যথায় কিছুটা স্বস্তি দিতে কাজ করবে। তবে এগুলো করোনার কোন প্রতিষেধক নয়। সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া