সিলেট প্রতিক্ষণ



দেশদর্পণ ডেস্ক

২২ নভেম্বর ২০১৭, ২:০১ অপরাহ্ণ




আনন্দ আয়োজনে কবি শুভেন্দু ইমামের জন্মদিন পালিত

দেশদর্পণ ডেস্ক :: সিলেটের সংস্কৃতিচর্চার যে নামটি বারবার উজ্জ্বল হয়ে দীপ্তি ছড়ায় দিকবিদিক, তিনি কবি ও গবেষক শুভেন্দু ইমাম। ১৯৫৩ সালের ২২শে নভেম্বর সুনামগঞ্জের জগন্নাথপুর উপজেলার বড়ফেছি গ্রামে জন্ম নেয়া এ সাহিত্য ব্যক্তিত্বের ৬৪তম জন্মদিন ছিল বুধবার। ১৯৯৩ সালে তাঁর প্রথম কাব্যগ্রন্থ ‘তোমার উদ্ধার নেই’ প্রকাশিত হয়। পরবর্তীতে তিনি আব্দুল করিম রচনাসমগ্র’, ‘আব্দুল করিম পাঠ ও পাঠকৃতি’ সহ বিভিন্ন গ্রন্থ সংকলন ও সম্পাদনার কাজ করেন। সর্বশেষ এ বছর তিনি রচনা করেন প্রবন্ধ গ্রন্থ প্রসঙ্গ ‘লালন ও অন্যান্য’। লেখালেখি ও সম্পাদনা ছাড়াও কবি শুভেন্দু ইমাম জড়িত ছিলেন বিভিন্ন সাংস্কৃতিক ও সামাজিক সংগঠনের সাথে।

প্রথিতযশা এ ব্যাক্তির জন্মদিন উপলক্ষে তাঁর স্বজন-অনুরাগীরা দিনটি ব্যাপক আয়োজনে পালন করেছে। এতে উপস্থিত ছিলেন সাহিত্য-সংস্কৃতি-পেশাজীবী অঙ্গনের প্রতিনিধিরা। বেলা চারটায় নগরের বাগবাড়ি এলাকায় কবির বাসভবনে এ অনুষ্ঠান হয়।

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি বক্তৃতায় বলেন, ‘শুভেন্দু ইমাম সিলেটের সাহিত্য-সংস্কৃতিকে তাঁর মেধা ও যোগ্যতায় সমৃদ্ধ করেছেন। আমাদের মাঝে তিনি আলোর বাতিঘর হয়ে দীর্ঘকাল আলো বিলাবেন, এ প্রত্যাশা রইল।’ এরপরই জন্মদিনের অনুভূতি ব্যক্ত করে বক্তব্য দেন শুভেন্দু ইমাম। তাঁকে ঘিরে এমন একটি অনুষ্ঠান করায় তিনি সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। এ পর্বে শুভেন্দু ইমামের কবিতা আবৃত্তি করেন আবৃত্তিশিল্পী নাজমা পারভীন এবং কবির পছন্দের গান পরিবেশন করেন বাউল বশিরউদ্দিন সরকার।

আনুষ্ঠানিকতা শুরুর আগে অন্তত অর্ধশতাধিক সংগঠন তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। বিশিষ্টজনদের মধ্যে একুশে পদকপ্রাপ্ত প্রবীণ লোকসংগীতশিল্পী সুষমা দাশ, গণতন্ত্রী পার্টির কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. আরশ আলী, কবি ও শিশুসাহিত্যিক তুষার কর, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি এমাদ উল্লাহ শহীদুল ইসলাম, বাংলাদেশ ওভারসিজ সেন্টারের প্রধান নির্বাহী শামসুল আলম, আইনজীবী বিজয়কৃষ্ণ বিশ্বাস, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব অম্বরীষ দত্ত, বিশিষ্ট আবৃত্তিশিল্পী মোকাদ্দেস বাবুল, অঙ্গীকার বাংলাদেশের পরিচালকমন্ডলীর সদস্য অ্যাডভোকেট মঈনুদ্দিন আহমদ জালাল, শাবিপ্রবির অধ্যাপক ড. নাজিয়া চৌধুরী, সিলেট চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক মুকির হোসেন চৌধুরী, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী, সাবেক সভাপতি সৈয়দ মনির হেলাল, কবি পুলিন রায়,কবি জফির সেতু,কবি আবিদ ফয়সাল,কবি নাজমুল হক নাজু, সিলেট কর আইনজীবী সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক সমরবিজয় সী শেখর, এসিড সন্ত্রাস নির্মূল কমিটির সাধারণ সম্পাদক জুরেজ আব্দুল্লাহ,  সাবেক ব্যাংক কর্মকর্তা বীরেন্দ্র সূত্রধর, কবি ধ্রুব গৌতম, সঞ্জয় কুমার নাথ, নাট্যসংগঠক হুমায়ূন কবীর জুয়েল, সাংবাদিক ও লোকসাহিত্য গবেষক সুমনকুমার দাশ, গণজাগরণমঞ্চ সিলেটের মুখপাত্র দেবাশীষ দেবু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়াও অনুষ্ঠানে সংগীতশিল্পী অনিমেষ বিজয় চৌধুরী, কবি কাসমির রেজা, কবি জাফর ওবায়েদ, সিলেট ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক প্রণবকান্তি দেব, সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সহ-সভাপতি খোয়াজ রহিম সবুজ, সাংবাদিক অপূর্ব শর্মা, সুপ্রিয় দেব শান্ত, দর্পণ থিয়েটারের সভাপতি জাফর সাদেক শাকিল, সহসভাপতি ফয়ছল মো. আবুল মহসিন,  নাজমুল হক নজু, কবি মালেকুল হক, প্রকাশক রাজীব চৌধুরী, নাট্যকার মোস্তাক আহমদ, কবি খালেদ-উদ- দীন, নৃত্যশিল্পী বিপুল শর্মা, জিবলু রহমান, শিল্পী নিলেন্দু ভট্টাচার্য, চিত্রশিল্পী সুভাষ চন্দ্র নাথ, সাংবাদিক ছামির মাহমুদ, আলোকচিত্রী আনিস মাহমুদ, সাংবাদিক মুন্সী মো. মিসবাহ উদ্দিন, সুফি সুফিয়ান, সাংবাদিক তন্ময় মোদক, সাংবাদিক ও সংস্কৃতিকর্মী নাবিদ হাসান, সাংবাদিক মামুন পারভেজ, বহুস্বর সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন, নবশিখা নাট্যদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ধ্রুব দে, প্রথম আলো বন্ধুসভা সিলেটের সাধারণ সম্পাদক শাকির হোসাইন, সংস্কৃতিকর্মী বশির আহমেদ, সিলেটস্থ জগন্নাথপুর ছাত্র-যুব ঐক্য পরিষদের সভাপতি হামিদুর রহমান চৌধুরী বাচ্চু, সাধারণ সম্পাদক মো. কোহিনূর রহমান, নাট্যকর্মী তন্ময় নাথ, সুমন আহমদ, তানিয়া তৃষা, জয়িতা জেহেন প্রিয়তী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। এর বাইরে বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত  বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি শুভেন্দু ইমামকে শুভেচ্ছা জানান।

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর